ধামরাইয়ে ভুমি অফিস ও উপজেলা পরিষদ চত্বর ঘেরাও করে ভুক্তভোগীদের মানববন্ধন।

0
61

 

মোঃ সিরাজুল ইসলাম ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি!! ঢাকার ধামরাইয়ে কুল্লা ইউনিয়নের মামুরা সহ সাতটি গ্রামের সংখ্যালঘুদের বাড়ি সহ কৃষি জমি দখলের অভিযোগ এনে, অবৈধ আকসির নগরের পক্ষে উপজেলা প্রশাসন থেকে মিথ্যা রিপোর্ট দেওয়ায় মানববন্ধন করেছে ভুক্তভোগী সহ এলাকাবাসী।

সোমবার ( ১০ অক্টোবর ) সকাল ১১ টার সময় ধামরাই উপজেলা ভুমি অফিসের প্রধান ফটকের সামনে মানববন্ধন, ও পরে যাত্রাবাড়ি মাঠ থেকে র‍্যালি বের করে বাজার হয়ে ধামরাই উপজেলা পরিষদ চত্বরে অবৈধ আকসির নগরের বিরুদ্ধে বসতবাড়ি সহ কৃষি জমি ধ্বংস এবং কৃষকদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা-হামলা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে ভুক্তভোগী গন।

এসময় মানববন্ধনে বক্তারা বলেন,অবৈধ আকসির নগরের পক্ষে মিথ্যা রিপোর্ট দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। এই মিথ্যা রিপোর্টে সাধারণ কৃষকেরা তৌহিদ এর সন্ত্রাস বাহিনীদের অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে ওঠেছে। অতিবিলম্বে তাদের গ্রেফতার ও শাস্তি দাবি করছি। এবং আকসির নগরে দখলকৃত বসতবাড়ি সহ ফসলী জমি ফিরে পাওয়ার দাবি জানান তারা।

মানববন্ধনে মোঃ নজরুল ইসলাম এর নেতৃত্বে – বক্তব্য রাখেন কুল্লা ইউনিয়ন কৃষক ঐক্য সংগঠনের কৃষক মরণ চন্দ্র রায়।ইউপি মেম্বার পলান , জেসমিন আক্তার,, অঞ্জন রায়, সহ আরও অনেকে।

উল্লেখ্য ধামরাই উপজেলার কুল্লা ইউনিয়নের মাখুলিয়া এলাকায় ২০১০সালে আকসির নগর নামে একটি আবাসিক প্রকল্প গড়ে ওঠার পর,আকসির নগরের মালিক মোঃ তৌহিদুল ইসলাম মাখুলিয়া সহ ৭টি গ্রামের নিরীহ মানুষের জমি জোর করে দখল করে বালি ফেলে ভরাট করে বিক্রি করেন।কৃষকদের জমির ওপর বালু ফেলতে বাধা দিতে গেলে আকসির নগরের কিছু সন্ত্রাসী ভারাটে লোকজন দিয়ে মারধর করেন হামলা-মামলা দিয়ে কৃষকদের হয়রানি করার প্রতিবাদে ৭টি গ্রামের মানুষ একত্রিত হয়ে এই মানববন্ধন করেন।