শিক্ষার মানোন্নয়নে প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছেঃপরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী।

0
11

মোঃখোকন আহমেদ 

মতলব উত্তর(চাঁদপুর)সংবাদদাতাঃ

চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর সরকারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে’র প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী কল্যান সমিতি’র বর্ণাঢ্য অভিষেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা কমিটির সদস্য ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম।

এ সময় পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম তার বক্তব্যে বলেন, ‘শিক্ষার মানোন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার বদ্ধপরিকর। বর্তমান সরকার শিক্ষা বান্ধব সরকার। শিক্ষার মানোন্নয়নে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছে।’

ড. শামসুল আলম বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে উন্নয়নের দিকে এগিয়ে নিতে এবং বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন। সেই কাজেরই ধারাবাহিকতায় চলতি ২০২২ সাল হবে দেশের অবকাঠামোগত উন্নয়নের মাইলফলকের বছর। কেননা, পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল, কর্ণফুলী টানেলের মতো মেগা প্রজেক্টগুলো এই বছর চালু হচ্ছে ।
শনিবার(৪জুন)দুপুরে চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর সরকারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ছেংগারচর উবি’র প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী কল্যান সমিতি’র বর্ণাঢ্য অভিষেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে তিনি একথাগুলো বরেছেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর-২ নির্বাচনী আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এড. নুরুল আমিন রুহুল এবং অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব মাইনুল হোসেন খান নিখিল।

প্রধান অতিথি আরও বলেন, ‘দেশের প্রতিটি খাতে সরকারের উন্নয়নের ছোঁয়া পৌঁছেছে। শতভাগ বিদ্যুতায়নের মাধ্যমে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের ঘরে ঘরে বিদ্যুতের আলো পৌঁছেছে। স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তরিত হয়েছে বাংলাদেশ। মুজিববর্ষে দেশের প্রতিটি এলাকায় ব্যাপক উন্নয়নের লক্ষ্যে নিয়ে কাজ করছে সরকার।’

সমাজ কল্যান মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. শাহ আলমের সভাপতিত্বে এবং ছেংগারচর উবি’র প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী কল্যান সমিতি’র যুগ্মসম্পাদক আরিফ উল্যাহ সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক শাজাহান মোল্লা ও বিশিষ্ট আইনজীবি ব্যারিষ্টার জুয়েল সরকারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন, আওয়ামীলীগের উপ-কমিটির সহসম্পাদক ও ছেংগারচর সরকারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী কল্যান সমিতি’র সাধারন সম্পাদক আরিফ উল্যাহ সরকার।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব এড. রুহুর আমিন, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের অধ্যক্ষ ড. আবু জাফর, সড়ক ও পরিবহন মন্ত্রনালয়ের যুগ্ম সচিব ড. মাহবুবুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশরাফুল হাসান, ছেংগারচর পৌর প্রশাসক মোঃ হোয়েত উল্যাহ্, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন খান সুফল, বিশিষ্ট চিকিৎসক ডা.খবির উদ্দিন পাটোয়ারী, মুক্তিযোদ্ধা নুরুল হক,
কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের উপ-কমিটির সদস্য মিজানুর রহমান মিজান, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সহ-সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার কামরুজ্জামান, স্কুলের প্রধান শিক্ষক(ভারপ্রাপ্ত) বেনজির আহমেদ প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা, কৃতি শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন,সাবেক যুগ্মসচিব ইব্রাহীম খলিল, সাবেক  উপ-সচিব ড. তোফাজ্জল হোসেন, এএসপি মতলব সার্কেল ইয়াছির আরাফাত, মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ শাজাহান কামাল, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মুজাম্মেল হক, উপজেলা পরিষদের মহিরা ভাইস চেয়ারম্যান শাহিনা আক্তার, অধ্যাপক নেছার উদ্দিন পাটোয়ারী, সাবেক মন্ত্রীপুত্র আনিছুল হক, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি শহীদ উল্যাহ প্রধান ও সিরাজুল ইসলাম লস্কর, ইউপি চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ, ইঞ্জিনিয়ার রেজাউল করিম, ফেরদাউদ আলম, আব্দুল্লাহ আল মামুন,

যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক কবির হোসেন মাস্টার, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক প্রভাষক একেএম আজাদ, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি দেওয়ান জহির, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক এড. মহসীন মিয়া মানিক, উপজেলা কৃষকলীগের সাধারন সম্পাদক  জিএম ফারুক, মতলব সরকারী ডিগ্রী কলেজ ছাত্রসংসদের সাবেক ভিপি আতাউর রহমান, ছেংগারচর পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাহবুব আলম বাবু প্রমুখ।

মাদক প্রতিরোধের বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, মাদক সামাজিক ব্যাধি। এটি নিজের জীবনের সঙ্গে সঙ্গে একটি পরিবার ও সমাজকে ধ্বংস করে দিতে পারে। দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা দুর্বার গতিতে চলছে। মাদক নিরোধ সম্ভব না হলে দেশের সেই উন্নয়ন যাত্রা থমকে যেতে পারে। তাই আসুন, মাদক প্রতিরোধে আসুন সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রাথমিক থেকে মাধ্যমিক শ্রেণি পর্যন্ত বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ, শিক্ষা ক্ষেত্রে তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার নিশ্চিতকরণ ও ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের হার কমানোসহ শিক্ষার মানোন্নয়নে বর্তমান সরকার ব্যাপক কাজ করে যাচ্ছে। তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে বর্তমান সরকার দেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয়েছে।’