শেরপুরে মসজিদের ইমাম রদবদল নিয়ে সংঘর্ষ আহত১৫।

0
17
এ জেড হীরা 
শেরপুর (বগুড়া)প্রতিনিধি:
মসজিদের ইমাম রদবদল নিয়ে বিবদমান দুই পক্ষের মধ্যে  সংঘর্ষের ঘটনায়  দুপক্ষের ১৫ জন আহত  হয়েছে বলে জানা গেছে অপর দিকে এঘটনাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে ব্যাপক থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে সংশ্লিষ্ট এলাকায় । এলাকা বাসী এঘটনায় আবারও সংঘর্ষের আশংকা করছেন ।
 গত ২২এপ্রিল শুক্রবার  জুম্মার নামাজের সময় চলা কালীন উপজেলার কুসুম্বী ইউনিয়নের দারুগ্রাম জামে মসজিদে এই ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা গেছে। সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে  দুইজনকে গুরতর অবস্থায় স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
এ সংঘর্ষে আহতরা হলেন- দারগ্রামের মফিজ উদ্দিনের ছেলে সাইদুল ইসলাম ও মজিবর রহমানের ছেলে আব্দুল হান্নান।
সংশ্লিষ্ট এলাকার  শান্তি স্থাপন ও  আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাচ্চু বিশ্বাসের নেতৃত্বে একদল শেরপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে অবস্থান নিয়েছেন বলে জানা গেছে।
 ঐ মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সৈকত হোসেন ও সদস্য ফারুক হোসেন গনমাধ্যমে  বলেন, বেশকিছুদিন ধরেই দারুগ্রাম জামে মসজিদের স্থানীয় বাসিন্দা মাওলানা আব্দুল করিম ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। প্রতিদিন পাঁচ ওয়াক্তসহ শুক্রবারের দিন জুম্মার নামাজ পড়ান তিনি। তবে রমজানের তারাবির নামাজের জন্য নতুন ইমাম নিয়োগ দেওয়ার দাবি তুলেন মসজিদের মুসুল্লীরা। একপর্যায়ে মুসুল্লীদের দাবীর প্রেক্ষিতে তারাবির নামাজের জন্য ইমাম নিয়োগ দেওয়া হয়। আর এই ইমাম নিয়োগ দেওয়া নিয়ে দারুগ্রামের মানুষ দুইভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েন। এমনকি আগের ইমাম আব্দুল করিমকে মসজিদের ইমামতি থেকে বাদ দেওয়ার নির্দেশ দেন। কিন্তু আরেক পক্ষ (করিম হুজুরের সমর্থকরা) তার প্রতিবাদ করেন। ফলে দুই পক্ষের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এদিকে বগুড়ার শেরপুর থানার ওসি শহিদুল ইসলাম বলেন মসজিদের ইমাম নিয়ে সৃষ্ট ঘটনার  বিষয়ে এখনো কোনো পক্ষেরই অভিযোগ পাওয়া যায় নি আসলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।