শেরপুরে ৬ দিনেও উদ্ধার হয়নি অপহৃত স্কুলছাত্রী, উদ্বেগ উৎকন্ঠায় পরিবার।

0
22

আমিরুল ইসলাম,

জেলা প্রতিনিধি শেরপুর:

শেরপুরে অপহরণের ৬ দিন পরও উদ্ধার হয়নি অপহৃত স্কুলছাত্রী (১৩)। গত ২৫ মার্চ রাতে শহরের দমদমা কালিগঞ্জ এলাকা থেকে অপহরণ হয় পার্শ্ববর্তী দিঘারপাড় মহল্লার এক ব্যবসায়ীর মেয়ে ও মমতাজ বেগম মেমোরিয়াল একাডেমির অষ্টম শ্রেনিতে পড়–য়া ওই ছাত্রী। ওই ঘটনায় সদর থানায় দিঘারপাড় মহল্লার মৃত জহুর আলী খলিফার ছেলে মমিন মিয়া (২৬) কে প্রধান আসামি করে ৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের হয়। তবে ৩০ মার্চ বুধবার পর্যন্ত উদ্ধার হয়নি অপহৃত স্কুলছাত্রী এবং গ্রেফতার হয়নি ওই মামলার কোন আসামি।
জানা যায়, গত ২৫ মার্চ রাত সাড়ে ৯ টার দিকে শেরপুর শহরের দমদমা কালিগঞ্জ মহল্লায় জেলা আইনজীবী সমিতি ও প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি রফিকুল ইসলাম আধারের বাড়িতে এক সামাজিক অনুষ্ঠান শেষে মাকে নিয়ে বাড়ি ফিরতে রাস্তায় অটোরিক্সার জন্য অপেক্ষা করছিল ব্যবসায়ী-সাংবাদিক পরিবারের ওই স্কুলছাত্রী। ওই অবস্থায় একই এলাকার মমিন মিয়া তার কতিপয় সহযোগি নিয়ে তাকে অপহরণ করে। পরে খোঁজা-খুঁজি করে না পেয়ে স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মমিন মিয়াসহ স্থানীয় শামীম মিয়া (২৫), জুবাইদুল (৩২), রায়হান (২৫) ও পার্শ্ববর্তী প্রতাবিয়া শাকিল মিয়া (২০)সহ ৫ জনকে স্ব নামে এবং অজ্ঞাতনামা আরও ২/৩ জনকে আসামি করে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ২৭ মার্চ তা নিয়মিত মামলা হিসেবে রেকর্ড হয়। অন্যদিকে, ওই ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছে আসামিরা।
এ ব্যাপারে সদর থানার এসআই ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মিঞা মো. জোবায়ের খালিদ জানান, ঘটনার পর থেকেই আসামিরা নিজ নিজ মোবাইল বন্ধ করে পলাতক রয়েছে। মামলার ভিকটিমকে উদ্ধারসহ আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।