বেআইনিভাবে পণ্য পরিবহনের সময় মোংলা বন্দরে বাল্কহেড আটক।

0
4

শিকদার শরিফুল ইসলাম ,

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি:

অবৈধভাবে মোংলা বন্দরে পণ্য পরিবহন করায় ‘এম বি জামাল’ নামে একটি বাল্কহেড আটক করা হয়েছে। বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার ও কঞ্জারভেন্সি বিভাগ শুক্রবার (১৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৭ টার দিকে পশুর নদী থেকে এই নৌযানটিকে আটক করে। মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের সচিব ও হারবার মাষ্টার কমান্ডার শেখ ফখর উদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। বাল্কহেডটিতে ৬০০ মেট্রিক টন ইউরিয়া
সার বহন করছিল বলেও জানান তিনি।

মোংলা বন্দরে বাল্কহেডে করে (বালু টানার ছোট নৌযান) যে কোনও পণ্য পরিবহন
নিষিদ্ধ। এই নিয়ম অমান্য করে যেসব বাল্কহেট পণ্য পরিবহন করে তাদের বিরুদ্ধে চলমান এই অভিযান।

আটক বাল্কহেডটি বন্দরের হারবাড়িয়া-৭ এ অবস্থানরত ভিয়েতনাম পতাকাবাহী “এম
ভি কনভিং ৮৯” জাহাজ থেকে ইউরিয়া সার বোঝাই করেছে বলে হারবার বিভাগ জানায়।
পশুর নদী থেকে আটক হওয়া এম বি জামাল বাল্কহেডটি বন্দরের ৬ নম্বর জেটিতে
রাখা হয়েছে। এটির মালিক ঢাকার আশুগঞ্জের মোঃ জামাল উদ্দিন। বাল্কহেডটিতে
ছয়জন স্টাফ রয়েছে বলে জানা গেছে।

অবৈধভাবে পণ্য পরিবহন করায় বাল্কহেডটির বিরুদ্ধে বন্দরের বিধি অনুযায়ী
ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানায় হারবার মাষ্টার কমান্ডার শেখ ফখর উদ্দিন।

উল্লেখ্য গত ১৬ নভেম্বর অবৈধভাবে মোংলা বন্দরে কয়লা পরিবহনের সময়
দূর্ঘটনার শিকার হয়ে পশুর নদীতে ডুবে যায় ফারদিন-১ নামে একটি বাল্কহেড।
সেময় বাল্কহেডে থাকা কয়েকজন নাবিকের প্রানহানীর ঘটনা ঘটে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here