নাটোরের লালপুরে প্রতিবন্ধী হয়েও জনপ্রতিনিধি হয়ে মানুষের সেবা করতে চান মিঠুন।

0
5
মুসা আকন্দ
নাটোর প্রতিনিধি: 
উচ্চতায় ৩ ফুট , ২ হাতই অচল , ছোট বেলায় মাকে হারিয়েও দমে যাননি মিঠুন আলী । ইচ্ছা শক্তিতে বিএ পাশ করা এ শারিরীক প্রতিবন্ধী মানুষটি জনসেবা করতে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন।
স্থানীয় সুত্র জানায় , নাটোরের লালপুর উপজেলার দুড়দুড়ীয়া ইউনিয়নের রাধাকান্তপুর গ্রামে দরিদ্র পরিবারে জন্ম মিঠুন আলীর । জন্ম থেকে ২ হাত কব্জির ওপর থেকে বাঁকা । বাবা আরজেদ আলী পেশায় একজন কৃষক । ৮ বছর বয়সে মিঠুনের মা ১৯৯৮ সালে ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান । বাবা ২য় বিয়ে করলে সৎ মায়ের সাথে থাকেন , দেখে বুঝার উপায় নেই ।
মিঠুন জানান , ২০১১ সালে এসএসসি ,২০১৪ সালে এইচএসসি ও ২০১৮ সালে বাঘা শাহদৌল্লাহ কলেজ থেকে স্নাতক পাস করেছেন। প্রতিবন্ধী হওয়ায় ও অর্থনৈতিক সংকট দুটি যেন চাকরি হওয়ার ক্ষেত্রে চরম বাধা । চাকরি নামক সোনার হরিণ তার জন্য পাওয়া স্বপ্নের ব্যাপার । তাই তিনি মনঃস্থির করেছেন সুখে দুঃখে সব সময় গ্রামের মানুষের পাশে থেকে সেবা করবেন। এই সিদ্ধান্ত থেকেই আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৮ নং দুড়দুড়ীয়া ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য প্রার্থী হয়েছে। ৪ ভাই-বোনের মধ্যে মিঠুন বড়।
মা জাহেরা বেগম বলেন , মিঠুন চাকরি পেলে চিন্তামুক্ত হতে পারতাম । তবুও মেম্বার পদে ভোট করছে ,আশা করি মহান আল্লাহর রহমতে ভোটে জয়ী হবে। রাধাকান্তপুর গ্রামের দুলাল মন্ডল(৭০) বলেন মিঠুন ছেলে হিসেবে ভালো। আমরা দোয়া করি সে যেন জিততে পারে। ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সাবিনা খাতুন বলেন আমরা মিঠুনকে এবার ভোট দিবো। আশা করি সে জিতে মানুষের পাশে থাকবে। আগামী ২৮ শে নভেম্বর লালপুরে দুড়দুড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মিঠুন ৯ নং ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য প্রার্থী ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here