রৌমারীতে বেড়িবাঁধ বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ-মানববন্ধন।

0
60

এলাহী শাহরিয়ার নাজিম
রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার সদর ইউনিয়নের সুতিরপাড় নামক স্থানে এলজিইডি এর আওতায় ক্ষুদ্র পানি সম্পদ প্রকল্পের বেড়িবাঁধ বাতিল করে অপরিকল্পিত সুইসগেটের স্থলে ব্রীজ নির্মানের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে ভুক্তভোগি ১১ গ্রামের মানুষ। রবিবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলা চত্বরে দুই ঘন্টাব্যাপী চলে এ মানববন্ধন।
মানববন্ধনে শহিদুল ইসলাম শালুর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও সুপ্রিম কোর্টের অ্যাডভোকেট মাসুম ইকবাল, কুড়িগ্রাম জেলা যুবলীগের সদস্য নুরুল আমিন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি হারুনর রশিদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা শামছুল আলম আকন্দ, সাবেক ছাত্রনেতা আসাদুজ্জামান আসাদ, ব্যবসায়ী আব্দুর রাজ্জাক, সমাজসেবক ফজলু রহমান প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, রৌমারী সদর থেকে বিচ্ছিন্ন সুতিরপাড়-চরবামনেরচর-খাঁটিয়ামারী সড়কের নমদাসপাড়া সংলগ্ন তথাকথিত বোয়ালমারী বেড়িবাঁধে অপরিকল্পিতভাবে তিন দরজার স্লুইসগেট নির্মাণ করা হয়। ফলে পানি নিষ্কাশনের বিকল্প কোনো ব্যবস্থা না থাকায় উপচে গিয়ে ওই জায়গায় ভেঙ্গে যায়। বোয়ালমারী বেড়িবাঁধ প্রকল্পটি নটানপাড়া মসজিদ থেকে শুরু হয়ে দাঁতভাঙ্গার খেতারচর বেড়িবাঁধে গিয়ে মিলিত হয়। খেতারচর হতে ভারতের কাঁটাতার পর্যন্ত বেড়িবাঁধের কোনো অস্তিত্ব নেই। যার কারনে ব্রহ্মপুত্রে পানি এসে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়। ভিতরে প্লাবিত এলাকার পানি নিষ্কাশনের জন্য সুইসগেট অপ্রতুল হওয়ায় প্রতিবছর দু’পাশের পাড় ভেঙ্গে যায়। পাশ্ববর্তী গ্রামের বাড়িঘর ও ফসলি জমি ভেঙ্গে যায়। এই ভাঙ্গা ¯সুইসগেটের কারনে ১১টি গ্রামের সাধারণ মানুষ তাদের উৎপাদিত পণ্য ন্যায্য মূল্য পায়না, স্কুল-কলেজগামী ছাত্রছাত্রী, অসুস্থ্য রোগি ও বিজিবি সদস্য পারাপারে আর্থিক ক্ষয়-ক্ষতিসহ প্রাণ নাশের ব্যাপক সম্ভাবনা থাকে। এছাড়াও প্রতি বস্তা ফসল বাজারে বহন করতে কৃষকের ৫০ টাকা করে খরচ হয়।
মানববন্ধন শেষে ৩দফা দাবিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here