মুলাদীতে ইউএনও’র মোবাইল নাম্বার ক্লোন করে টাকা দাবী।

0
23

আরিফুল হক তারেক

মুলাদী (বরিশাল) প্রতিনিধিঃ

মুলাদীতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সরকারি মুঠোফোন নাম্বার ক্লোন করে টাকা দাবীর অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার (২আগস্ট) সন্ধ্যা ৬টার দিকে বাটামারা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলাম সিকদারের কাছে ইউএনও পরিচয়ে ৫ হাজার টাকা চাওয়া হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলেছেন, অন্য কেউ তার সরকারি নাম্বার ক্লোন করে টাকা দাবী করেছে। ইউএনওর নাম্বার থেকে আসা কণ্ঠের ভিন্নতা থাকায় ইউপি চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলামের সন্দেহ হয়। তিনি তাৎক্ষণিক ইউএনওকে জানালে প্রতারণা ও মুঠোফোন নাম্বার ক্লোনের বিষয়টি ধরা পড়ে। বাটামারা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলাম সিকদার জানান, সোমবার সন্ধ্যায় ইউএনওর সরকারি মুঠোফোন নাম্বার থেকে একটি ফোন আসে। ওই ব্যক্তি নিজেকে ইউএনও পরিচয় দিয়ে জরুরি প্রয়োজনে তাকে দ্রæত ৫ হাজার টাকা দেওয়ার অনুরোধ করেন। সাথে ওই প্রতারক একটি বিকাশ নাম্বারও দেয়। সন্দেহ হওয়ায় তিনি টাকা না দিয়ে ইউএনওকে ফোন দিয়ে নাম্বার ক্লোন সম্পর্কে নিশ্চিত হন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূর মোহাম্মাদ হোসাইনী বলেন, তিনি কাউকে ফোন করেননি এবং টাকা দাবী করেননি। মুঠোফোন নাম্বার ক্লোন করে টাকা দাবী করা হয়েছে। বিষয়টি বিব্রতকর। ইতোমধ্যে তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি জানিয়ে সতর্ক করে দিয়েছেন এবং প্রতারককে খুঁজে বের করতে থানা পুলিশকে নির্দেশণা দিয়েছেন। মুলাদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস.এম মাকসুদুর রহমান জানান, ইউএনওর সরকারি নাম্বার ক্লোন ও জনপ্রতিনিধিদের কাছে টাকা দাবীর বিষয়টি গুরুত্বসহকারে তদন্ত করা হচ্ছে। প্রতারকের দেওয়া বিকাশ নাম্বার দিয়ে ট্র্যাকিং এর চেষ্টা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here