তথাকথিত” বলে ক্ষমা চাইলেন ডেপুটি কমান্ডার।

0
9
মুসা আকন্দ
নাটোর প্রতিনিধি: 
নাটোর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন কমিটির সাধারণ সম্পাদক শফিউল আজাম স্বপন এক সংবাদ সম্মেলনে নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শিমুল এমপির বাবাকে রাজাকার বলায় তার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছে নাটোরের মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড ইউনিট। সাবেক ডেপুটি কমান্ডার হাবিবুর রহমান স্বাক্ষরিত লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন তিনি। লিখিত বক্তব্যে স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন কমিটিকে তথাকথিত বলা হয়। এ সময় উপস্থিত ডিবিসি টেলিভিশনের সাংবাদিক পরিতোষ অধিকারী তাকে প্রশ্ন করলে সেই সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি তথাকথিত বলার জন্য সংবাদ সম্মেলনে প্রকাশ্যে ক্ষমা চান। সংবাদ সম্মেলনে দেশ টেলিভিশন ও ভোরের কাগজ-এর সাংবাদিক রনেন রায় ডেপুটি কমান্ডার কে প্রশ্ন করেন, ১৯৭২ সালে ৫ মার্চ তৎকালীন মহকুমা প্রশাসক স্বাক্ষরিত প্রণীত কলাবোরেটর তালিকায় ঐ মহল্লার ঐ নামিয় ব্যক্তির নাম পাওয়া যায়। ওই ব্যক্তিটি আসলে কে ছিলেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে ডেপুটি কমান্ডার কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি। এ সময় তিনি বলেন শিমুলের পিতাকে রাজাকার সম্বোধন করে মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন তথ্য উপস্থাপন করেছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। প্রকৃত সত্য এই যে ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে মরহুম হাসান আলী সরদার জেলা পরিষদ সংলগ্ন চক বৈদ্যনাথ মহল্লায় বসবাস করতেন তিনি নাটোর জেলার একজন সুপরিচিত ব্যবসায়ী ছিলেন আমরা মুক্তিযুদ্ধ তৎকালীন সময়ে বিভিন্নভাবে তার সাথে যোগাযোগ করি এবং তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের খাদ্য ঔষধ নগদ অর্থ সহায়তা নিরাপদ আশ্রয় মুক্তিযুদ্ধে থাকার ব্যবস্থা করেছেন তিনি মূলত স্বাধীনতার স্বপক্ষের মুক্তিযোদ্ধাদের বন্ধু ছিলেন। তাকে কি তাহলে মুক্তিযোদ্ধা বলা যায়? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, না যায় না। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের প্রশ্ন বানে জর্জরিত ও ক্ষতবিক্ষত হন। তিনি অধিকাংশ প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে যান। এক সময় তড়িঘড়ি করে সংবাদ সম্মেলন শেষ করে উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন আপনারা চলে যান। এতে সাংবাদিকরা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। তারা জানান, দেশের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কাছ থেকে এমন আচরণ অপ্রত্যাশিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here