করোনা সচেতনতায় বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের বণ‍্যার্ঢ মটর শোভাযাত্রা।

0
18

মোঃখোকন হাওলাদার 

বরিশাল প্রতিনিধিঃ

বরিশালে লকডাউনের দ্বিতীয় দিন রাস্তাঘাটে মানুষজনের চলাচল বেড়েছে। দূরপাল্লার যানবাহন বন্ধের সুযোগে রিক্সা, ব্যাটারী চালিত রিক্সা, অটোরিক্সা এবং থ্রি হুইলারে দ্বিগুন-তিনগুন ভাড়ায় চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছেন মানুষ।

অপরদিকে,করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে সকালে নগরীতে র‌্যালী এবং মাস্ক বিতরণ করেছে মেট্রোপলিটন পুলিশ। মঙ্গলবার (২৯ জুন) সকাল ১১টায় নগরীর জিলাস্কুল মোড় থেকে এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান।

এসময় পুলিশ কমিশনার বলেন, ‘স্বাস্থ্যবিধি মানা ছাড়া করোনা প্রতিরোধ সম্ভব নয়। মাস্ক ছাড়া কেউ রাস্তায় বের হতে পারবে না। লকডাউনকালে অপ্রয়োজনে কোন দোকানপাঠ খোলা রাখা যাবে না। এ বিষয়ে মেট্রোপলিটন পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে।

এদিকে, প্রশাসনের শিথিলতার সুযোগে নিত্যপণ্য এবং ঔষুধ দোকান ছাড়াও অন্যান্য দোকানপাঠ খুলতে শুরু করেছে। তবে মাস্ক ব্যতিত রাস্তায় বের হলে এবং অপ্রয়োজনীয় দোকান খুললে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার হুশিয়ারী দিয়েছেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান।

লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে রাস্তায় বেড়েছে মানুষের চলাচল। রিক্সা, অটোরিক্সা এবং থ্রি হুইলারে গন্তব্যে যাচ্ছেন তারা। দূরপাল্লার যানবাহন বন্ধ থাকায় ভেঙ্গে ভেঙ্গে স্বল্প দূরত্বে গিয়ে ফের পরবর্তী গন্তব্যে যাচ্ছেন জরুরী প্রয়োজনে রাস্তায় বের হওয়া মানুষ। এক্ষেত্রে গুনতে হচ্ছে দ্বিগুন-তিনগুন ভাড়া। অতিরিক্ত ভাড়া দেয়ার সামর্থ্য না থাকায় অনেকে হেঁটেই যাচ্ছেন গন্তব্যে।

নগরীর সদর রোডসহ বিভিন্ন এলাকায় এক শাটার খোলা রেখে চশমা, পোষাক এবং প্রসাধনীর দোকানে বেচা বিক্রি করতে দেখা গেছে। লকডাউনের অজুহাতে পিয়াজ, রোশন, আঁদা, আলুর পর এবার বরিশালের বাজারে বেড়েছে কাঁচা তরকারির দাম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here