আশুলিয়ায় উঁচু বাধ দেওয়া কে কেন্দ্র করে প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ,বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে।।

0
60

রায়হান আলী 

আশুলিয়া প্রতিনিধিঃ

সাভারের আশুলিয়া জামগড়ার নরসিংহপুর এলাকার মানিকগঞ্জ পাড়ায় বাড়িতে বৃষ্টির পানি প্রবেশ করায় উঁচু করে বাধ দেওয়ার জন্য ক্ষিপ্ত হয়ে খারাপ ভাষায় গালাগালি ও পরবর্তীতে প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উক্ত এলাকার সাঈদ মিয়ার বাড়িতে সামান্য বৃষ্টিপাত হলেই পানি প্রবেশ করে ভাড়াটিয়াদের সমস্যা সৃষ্টি করে। সেই পানি যাতে আর প্রবেশ না করে এজন্য উঁচু করে বাধ দেন তিনি। এ সময় রাস্তা দিয়ে যাওয়ার স্থানীয় বিএনপি নেতা সিদ্দিক মিয়া দেখে অকত্য ভাষায় গালাগালি করতে থাকে। পরে, সাঈদ মিয়া এগিয়ে এসে সিদ্দিক মিয়ার কাছে কারণ জানতে চাইলে সে চড়াও হয়ে মারতে আসে এবং পরবর্তীতে যেন এমন বাধ দেওয়া না হয় দিলে প্রাণনাশের হুমকিও দেওয়া হয় তাকে।

এ বিষয়ে সাঈদ মেয়ের ছেলে শামীম আহম্মেদ বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় এসআই ওয়াজেদ এর অধীনে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

এ প্রসঙ্গে বিএনপি নেতা সিদ্দিক মিয়ার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার সময় তিনি সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাব এড়িয়ে দিনে ফোন দিতে বলেন।

প্রাণনাশের হুমকির বিষয়টি নিয়ে সাঈদ মিয়া বলেন, এই এলাকায় অনেকেই রাস্তার জায়গা দখল করে মার্কেট করে ভাড়া দিয়ে খাচ্ছে। কিন্তু আমি সামান্য পানি আটকানোর জন্য একটা ছোট উঁচু বাধ দিয়েছি বলে এত বড় হুমকি প্রদান করলো।

এ বিষয়ে অত্র এলাকার দোকানদারেরা সাংবাদিকদের বলেন, সিদ্দিক মিয়া এলাকার প্রভাবশালী হওয়ায় মানুষের উপর অত্যাচার করে। আমরা দ্রুত প্রশাসনের মাধ্যমে এর নিস্তার চাই।

থানায় অভিযোগ দায়ের শেষে শামীম আহম্মেদ বলেন, আমি আইনকে শ্রদ্ধা করি। আমার বাবাকে প্রাণনাশের হুমকির পর থেকে খুবই চিন্তায় আছি। সিদ্দিক মিয়া খারাপ প্রকৃতির লোক আমাদের যে কোন সময় ক্ষতি করতে পারে তাই আইনের মাধ্যমেই এর সমাধান চাই।

বিষয়টি নিয়ে আশুলিয়া থানার এস আই ওয়াজেদ আলীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, দু পক্ষের সঙ্গেই আমার কথা হয়েছে। ঘটনাস্থলে কাল(শনিবার) সকালে যাব সেখান থেকে এসে তারপর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, সঠিক তদন্তের মাধ্যমে সিদ্দিক মিয়ার হুমকি স্বরূপ হুশিয়ারির বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি ভুক্তভোগী পরিবারের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here