স্বরূপকাঠীতে ২০ ফুট খালে ১০ ফুট বক্স কালভার্ট নির্মাণ!

0
12

রাহাদ সুমন,

বানারীপাড়া(বরিশাল)প্রতিনিধিঃ

পিরোজপুরের স্বরূপকাঠীতে খালের অর্ধেক অংশ ভরাট করে বক্স কালভার্ট নির্মাণ করায়  নৌ চলাচল ও  পণ্য পরিবহন ব্যাহত হচ্ছে। উপজেলার সোহাগদল ইউনিয়নের মুসল্লীবাড়ী থেকে বড়ইবাড়ী পর্যন্ত ডেক্স কার্পেটিং রাস্তা ও খালসমূহে বক্স কালভার্ট নির্মাণ করছে স্থানীয় সরকার ও প্রকৌশল বিভাগ(এলজিইডি)। মেসার্স রূপালী কনস্ট্রাকশনের হয়ে জনৈক সুমন মিয়া ও কতিপয় ব্যক্তি ঠিকাদারী লাইসেন্সধারী না হয়েও সমঝোতার মাধ্যমে সরকারের উন্নয়নমূলক এ কাজ বাস্তবায়ণ করছেন। সরেজমিনে স্থানীয় ফার্ম ব্যবসায়ী ও কৃষকদের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে দেখা গেছে, বিগত সময়ে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার অধীনে ২৩ ফুট দীর্ঘ লোহার পুল অপসারন করে কবিরাজবাড়ীর সামনে মাত্র ১০ ফুট দৈর্ঘ্যরে  বক্স কালভাট নির্মাণ করছে নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি। ফলে প্রায় ২০ ফুট প্রশস্থের খালটি দুইপাড়ে ১০ ফুট ভরাট হয়ে মাত্র ১০ ফুট খালে পরিনত হওয়ায় পানির স্বাভাবিক প্রবাহ বিঘ্নিত হচ্ছে, এতে বাদশা মিয়ার বাড়ি ভেঙ্গে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।  পাশাপাশি জাকির মিয়াসহ বেশ কয়েকজন ফার্ম ব্যবসায়ীর মুরগীর খাবারসহ অন্যান্য পণ্য পরিবহণ ও প্রায় শতাধিক কৃষক পরিবারের কৃষিপণ্য পরিবহণে ব্যবহৃত নৌকা-ট্রলার চলাচল করতে না পারায় নৌপথে যোগাযোগ অচল হয়ে পড়েছে। এদিকে একই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ওই রাস্তায় নির্মাণ কাজে ব্যবহার অনুপোযোগী নি¤œমানের ইট ও ইটের উচ্ছিষ্ট(রাবিশ) ব্যবহার করতে দেখা গেছে। এ বিষয়ে উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী মীর আলী সাকির মুঠোফোনে জানান, ওখানে খাল মূলত ১০ ফুট,  বক্স কালভার্ট নির্মাণ করতে গিয়ে খোড়ার কারনে খাল বড় দেখাচ্ছে। ডিজাইন অনুযায়ী বক্স কালভার্ট নির্মাণ করা হচ্ছে। আমি সরেজমিন পরিদর্শন করেছি তখন স্থানীয়রা কোন অভিযোগ করেননি এবং কাজ বুঝিয়ে দিয়ে এসেছি। এ ব্যাপারে স্থানীয় অভিযোগকারী আবু জাফর বলেন, উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার যখন কাজ বুঝিয়ে দিয়েছেন তখন খাল পূর্বের  ন্যায় ছিল, খালের অর্ধেক ভরাট করে নৌপথ বন্ধ ছিলোনা। তাই উপজেলা ইঞ্জিনিয়ারের কাছে অভিযোগের প্রশ্নই আসেনা। এখন খালের অর্ধেক অংশে বক্স কালভার্ট করায় নৌপথ বন্ধ হওয়ায় স্থানীয়রা ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন। এ প্রসঙ্গে
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মোশারেফ হোসেন মুঠোফোনে জানান, তিনি উপজেলা প্রকৌশলীর কাছে এ বিষয়ে জানতে চেয়েছেন এবং উপজেলা প্রকৌশলী তাকে জানিয়েছেন ওখানে খাল মূলত ১০ ফুট,  বক্স কালভার্ট নির্মাণ করতে গিয়ে খোড়ার কারনে খাল বড় দেখাচ্ছে। বিগত দিনের ২৩ ফুট লোহার পুলের স্থলে ১০ ফুট বক্স কালভার্ট এবং নৌপথে পণ্য পরিবহন বন্ধ হয়ে যাওয়াসহ কালভার্টের দুই পাশের খালের ব্যাসার্ধ প্রায় ২০ ফুট হলে ওই স্থানে ১০ ফুট কালভার্টের যৌক্তিকতার ব্যাপারে ইউএনও বলেন, খাল ভরাট করে উন্নয়ন কাজ করার সুযোগ নাই। আমি সরেজমিন পরিদর্শন করে দেখবো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here