লবনের বহুবিদ ব‍্যাবহার সম্পর্কে জানুন।।

0
12

বাংলার রূপ ডেস্কঃ

“লবন” আমাদের দৈনন্দিন জীবনের খাদ‍্য অভ‍্যাসে খুবই প্রয়োজন,এমনকি আমারা আরও কিছু কাজে লবণ ব‍্যাবহার করে আসছি যেমন কাচাঁ মাছ সংরক্ষণ,কাচাঁ চামড়া সংরক্ষণ,মাছের শুটকি প্রকৃয়াজাত করনেও লবনের ব‍্যাবহার করে থাকি।তবে এই ব‍্যাবহার ছাড়াও আমাদের অজানা রয়েছে লবনের আরো বহুবীদ ব‍্যাবহার এর মধ‍্যে আমরা কিছু ব‍্যাবহার তুলে ধরছি।

যেমন আমারাদের সবারই সখের কিছু পোশাক থাকে,এগুলো পরার পর ভুল বশত কোনো না কোন ভাবে বিভিন্ন জিনিসের দাগ লেগে সখের পোশাকটি নষ্ট হয়ে যায়।তখন আমরা মন খারাপ করি এবং পোশাকটি ব‍্যাবহার করিনা। তবে আমারা আর এই কাজটি করবোনা যেকোনো দাগ  লেগে যাওয়া পোশাকটির নিদৃষ্ট স্থানে লবন মেশানো পানি দিয়ে ১ ঘন্টা ভিজিয়ে রেখে সাবান দিয়ে ধুয়ে ফেলুন দেখবেন দাগ চলে গিয়েছে।

অনেক ফল আছে যা কিছুক্ষণ কেটে রেখে দিলে কালচে বর্নের হয়ে যায়,জেনে রাখুন তবে আর চিন্তা নেই।এই ধরনের ফল গুলো কাটার পর সামান্য পরিমাণ লবন মিশিয়ে রাখলে আর কালো হবেনা।

আমারা মাছে ভাতে বাঙ্গালী।আমাদের প্রায় সবাই দৈনিক খাদ্য তালিকায় মাছের তরকারি ছাড়া খাবার খেলে পেট খালি থাকে।আর এই মাছ পরিবেশনের আগে কাচাঁ মাছটি কাটতে হয়,তবে মাছ কাটার পর কাচা মাছের গন্ধ হাত থেকে সহজে যায় না।তবে এই সহজেই দূর করার জন্য হাতে সামান্য সাদা ভিনেগার নিয়ে ও সামান্য লবণ নিয়ে হাতে মাখিয়ে সাবান দিয়ে ধুয়ে ফেলুন দেখবেন আপনার হাতে কোনো প্রকার দুর্গন্ধ নেই।

জুতার দূর্গন্ধ ইস সে কি বিশ্রী অবস্থা।

আমরা সারাদিন জুতা পরে থাকার কারনে অনেক সময় বিশ্রী দূর্গন্ধ সৃষ্টি হয়।আর এ কারনে অনেক সময় আমারা বন্ধু বান্ধবের সাথে চলা ফেরা করতে বা কোথাও বেড়াতে গেলে বাসায় সামনে জুতা রাখতে লজ্জা পেতে হয়।আর নয় লজ্জা আর নয় ইস্তত্ত বোধ।প্রতিদিন বাসায় ঢুকে জুতা খুলে সামান্য পরিমাণ লবন জুতার ভিতরে ছিটিয়ে রাখুন, দেখবেন আপনার জুতোতে পরদিন থেকে কোন প্রকার দূর্গন্ধ থাকবে না।

আমরা চা কফি খাওয়ার পরে কাপ বা মগে অনেক সময় লালচে দাগ লেগে যায়,যা সহজে উঠতে চায়না।এই সমস্যা সমাধানে আর নয় চিন্তা,একটু লবন দিয়ে দাগ লাগা পাত্রটি একটু ঘষে ডিস ওয়াসের সাবান দিয়ে ধুয়ে ফেলুন দেখবেন আপনার পাত্রটি নতুনের মত উজ্জ্বল হয়ে যাবে।

ধন্যবাদ বন্ধুরা আপনারা বাংলার রূপের নিত্য নতুন টিপস গুলো পরুন।আর নতুন নতুন টিপস জানুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here