অ‍্যালোপ‍্যথিক,ইউনানী,আয়ুর্বেদিক সহ ৩৭ টি কোম্পানির লাইসেন্স বাতিল।

0
526

বাংলার রূপ নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

মানহীন ও ভেজাল ওষুধ উৎপাদন করার দায়ে একটি সরকারি প্রতিষ্ঠান সহ দেশের ৩৭টি ঔষধ উৎপাদনকারি প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স সাময়িক বাতিল করেছে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর। এর মধ্যে ১২টি অ্যালোপ্যাথিক, ১৪টি ইউনানী ও ১১টি আয়ুর্বেদিক ঔষধ কোম্পানি রয়েছে। গত মঙ্গলবার ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোঃমাহবুবুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি এসব কোম্পানির লাইসেন্স বাতিল করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সাময়িক লাইসেন্স বাতিল হওয়া কোম্পানিগুলো তাদের ওষুধ উৎপাদন, বিক্রি, মজুদ, বিতরণ ও প্রদর্শন করতে পারবে না।এছারাও চিকিৎসকরা এসব কোম্পানির ওষুধ ব্যবস্থাপত্রে লিখতে পারবেন না। কেমিস্টদেরকেও এইসব কোম্পানির ঔষধ বিক্রি থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। এমনকি জনসাধারণকেও এসব কোম্পানির ওষুধ ক্রয় বিক্রয় ও ব্যবহার না করার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়,অ‍্যালোপ‍্যাথিক কোম্পানি গুলো হলো, মেসার্স মনোমেদী বাংলাদেশ লি., সরকারি প্রতিষ্ঠান জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট, মেসার্স মার্কার ফার্মাসিউটিক্যালস,মেসার্স বায়োস ফার্মাসিউটিক্যালস, পিপলস ফার্মা, বিস্ট্রল ফার্মা, হলমার্ক ফার্মাসিউটিক্যালস,নোভাস ফার্মাসিউটিক্যালসের উৎপাদন লাইসেন্স (জৈবও অজৈব) বাতিল করা হয়েছে।মনিকো ফার্মার সব ধরনের ঔষধ উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ সাময়িক স্থগিত করা হয়েছে।ফিনিক্স কেমিক্যাল ল্যাবরেটরিজের (বাংলাদেশ), টেকনো ড্রাগসের (ইউনিট-৩) সব ধরনের ওষুধ উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ স্থগিত করা হয়েছে। এছাড়া বিস্ট্রল ফার্মার বিস্ট্রল ডেল্টা ট্যাবলেটের নিবন্ধন বাতিল করা হয়েছে।

আয়ুর্বেদিক কোম্পানির মধ্যে সেবাশ্রী ঔষধালয়, ট্রেডিংটন কেমিক্যাল ওয়ার্কস, দ‍্যি মৌভাষা ইসলামিয়া ঔষধালয়, আর বল আয়ুর্বেদিক ফার্মেসি, রেডিয়েন্ট নিউট্রিসিউটিক্যালস (আয়ুর্বেদিক ডিভিশন) উৎপাদন লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে।এছারাও শ্রী কৃষ্ণ ঔষধালয় (আয়ুর্বেদিক) ওষুধ উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ স্থগিত করা হয়েছে।অরিজিন ল্যাবরেটরিজের (আয়ুর্বেদিক) আমলকী রসায়ন (তরল), অরিটলিন তরল, এবং হার্বেজিন সেমিসলিডের, নিবন্ধন বাতিল করা হয়েছে।নিকো আয়ুর্বেদিক ল্যাবরেটরিজের নিকোডক্সের নিবন্ধন বাতিল করা হয়েছে। দিহান ফার্মাসিউটিক্যালস (আয়ুর্বেদিক) ট্যাবলেট জাতীয় আইটেমের উৎপাদন স্থগিত করা হয়েছে।ঔষধি ল্যাবরেটরিজের কারখানায় ভস্মজাতীয় আইটেম উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ স্থগিত করা হয়েছে। মুন ফার্মাসিউটিক্যালসের অনেক গুলো প্রোডাক্টের উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ স্থগিত করা হয়েছে।

এছাড়া ইউনানী কোম্পানির মধ্যে বি. এন. ল্যাবরেটরিজ,অরিক্স ইউনানী ল্যাবরেটরিজ, ফয়েজী দাওয়াখানা,বেঙ্গল ইউনানী দাওয়াখানার উৎপাদন লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে।র‌্যাপিটেক ইউনানী ল্যাবরেটরিজ, মল্লিক ইউনানী ল্যাবরেটরিজ, নিউটন ল্যাবরেটরিজের সব ধরনের ওষুধ উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ স্থগিত করা হয়েছে।একে ল্যাবরেটরিজ ও আল সাফা ল‍্যাবরেটরিজের দুটি করে প্রোডাক্টের নিবন্ধন সাময়িক বাতিল করা হয়েছে। সবুজ হেলথ ল্যাবরেটরিজের ও নিরাময় হেলথ ল্যাবরেটরিজের একটি করে প্রোডাক্টের আইটেমের নিবন্ধন বাতিল করা হয়েছে। এ ছাড়া গাজীপুরের জেবিএল ড্রাগ ল্যাবরেটরিজের জেসিলভা (ক্যাপসুল হাব্বে আম্বর মোমিয়ায়ী), নিশিক্যাপ (ক্যাপসুল হাব্বে নিশাত), জেবিএল বয়জা (সেমিসলিড হালওয়া বয়জা) গুডহেলথ ল্যাবরেটরিজের  ( লুমাটন),( ইপিওজি),( জি আজীব), জিএইচ ২০, টাররাসিল) আইটেমের উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ স্থগিত করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here