গোপালগঞ্জে কাভার্ডভ্যানের চাপায় দুজন নিহত।

0
61

 

 

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি।

 

 

গোপালগঞ্জে প্রাণ কোম্পানির কাভার্ডভ্যানের চাপায় চালক সহ দুইজন নিহত হয়েছেন, ও আহত হয়েছেন আরো একজন।

 

আজ বৃহস্পতিবার সকাল  আটটার দিকে,গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার ডুমদিয়া এলাকার ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

 

 

এই দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন, জেলার  কাশিয়ানী উপজেলার, শংকর পাড়া গ্রামের আব্দুল মান্নান শিকদার (৬০),তার পিতার নাম আইন উদ্দিন সিকদার। এছাড়া সদর উপজেলার তেবাড়িয়া গ্রামের রাজমিস্ত্রি মনজুর  সরদার (৩৮) তার পিতার নাম মোতালেব সরদার।

 

এই ঘটনায় আহত হন নিহত মঞ্জুর সরদারের ছেলে হৃদয় সরদার (১৮)। আহতকে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

 

এ দুর্ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ জনতারা প্রায় আধা ঘন্টা ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানা যায়।

 

 

এই ঘটনায় গোপালগঞ্জ সদর থানার সাব ইন্সপেক্টর (এসআই) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বাংলার রূপ নিউজ টোয়েন্টিফোর কে জানান, নিহত মঞ্জুর ও তার ছেলে আহত হৃদয় রাজমিস্ত্রির কাজ করেন।তাই কাজের উদ্দেশ্যে,আজ সকালে একটি ইঞ্জিনচালিত ভ্যানে পুলিশ লাইন এলাকায় কর্মস্থলে  যাচ্ছিলেন।

এ সময় তাদের ভ্যানগাড়িটি উপজেলার ডুমদিয়া এলাকায় পৌঁছালে,গোপালগঞ্জ থেকে কাশিয়ানী গামী একটি প্রাণ কোম্পানির কাভার্ডভ্যানের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। পরে ঘটনাস্থলে মনজুর নিহত হন এবং আহত অবস্থায় ভ্যান চালক আব্দুল মান্নান ও হৃদয় কে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে’ আব্দুল মান্নান মারা যান। এবং নিহত মঞ্জুরের ছেলে হৃদয় গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
এসময় (এসআই) সাইফুল ইসলাম আরো জানান,দুর্ঘটনার খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় বিক্ষুব্ধ জনতা সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ  করে রাখেন। পরে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিকুর রহমান খান ঘটনাস্থলে গিয়ে বিক্ষুব্ধ জনতা দের না বিচারের আশ্বাস দিলে তারা শান্ত হয়ে অবরোধ তুলে নেয়।

 

 

ঘাতক কাভার্ডভ্যানটি বিজয়পাশা থেকে পুলিশ আটক করেছে বলে জানা যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here