“রুশ গুপ্তচর “মারিয়া বুতিনা, যুক্তরাষ্ট্র থেকে মস্কোয় ফিরলেন।

0
30

 

 

ডেস্ক রিপোর্ট 

 

দীর্ঘ ১৫ মাসের বেশি সময় ধরে বন্দী থাকার পর,যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কারাগার থেকে  মুক্তি পেলেন রাশিয়ার কথিত ‘রুশ গুপ্তচর ‘মারিয়া বুতিনা।

 

“বার্তা সংস্থা রয়টার্স “থেকে জানা যায়,মার্কিন অভিবাসন কর্মকর্তারা মারিয়া বুতিনা কে যুক্তরাষ্ট্র থেকে বিতাড়িত করার পর,শনিবার তিনি মস্কোর শেরেমেতিয়েভো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান। এসময় বিমানবন্দর থেকে বুতিনার বাবা ও সাংবাদিকরা তাকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন।

 

দেশে ফিরে মারিয়া বুতিনা আবেগ অগ্লুপাত কন্ঠে সাংবাদিকদের বলেন,রুশরা কখনো কারো কাছে আত্মসমর্পণ করে না।এ সময় তার সাথে আরও উপস্থিত ছিলেন,রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র এবং তার বাবা।

 

এ সময় ৩০ বছর বয়সি এই স্নাতকের ছাত্রী,হাতে সাদা গোলাপের তোড়া নিয়ে তার সমর্থকদের ধন্যবাদ জানান। এবং দেশে ফিরতে পেরে তার সমর্থকদের সামনে খুশির আমেজ ব্যক্ত করেন।

 

সি এন এনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায়,গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে মারিয়া বুতিনা কে এ বছরের  শুরুর দিকে ১৮ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল আদালত। এর আগে গত বছরের জুলাই থেকেই তাকে গ্রেফতার করে হেফাজতে নিয়েছিলেন বলে জানা যায়।

 

রুশ নারী মারিয়া বুতিনার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র কৌঁসুলিদের অভিযোগ, তিনি রাশিয়ার সরকারি গোয়েন্দা। যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ছিলেন মারিয়া।

মারিয়া বুতিনের বাড়ি সাইবেরিয়ায়।তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতে শিক্ষার্থীর ভিসায় যুক্তরাষ্ট্রে যান।তবে পড়ালেখার আড়ালে তিনি গুপ্তচরবৃত্তি করতেন বলে অভিযোগ করেন যুক্তরাষ্ট্র।

 

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন,মারিয়ার কারাদণ্ডের  পদক্ষেপে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।তিনি আরো বলেছিলেন, মারিয়া বুতিনা কোন গুপ্তচর না।

তিনি আরো অভিযোগ করেন গতবছর রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও বুতিনা কে মিথ্যা স্বীকারোক্তি দিতে বাধ্য করা হয়েছিল।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here