৭৫ কোটি টাকার সাপের বিষসহ আন্তর্জাতিক চোরাচালান কারবারির ৬ সদস্য গ্রেপ্তার।

0
29
বাংলার রূপ নিউজ ডেস্কঃ
অবৈধভাবে সাপের বিষ বিক্রিকারী এক চোরাচালান চক্রের ৬ সদস্যকে আটক করেছে রেপিড একশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব-২)। এ সময় তাদের কাছ থেকে প্রায় ৭৫ কোটি টাকার সাপের বিষ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার ২৫ শে ডিসেম্বর ভোররাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজধানীর দক্ষিনখান এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।
জানা যায় তারা আন্তর্জাতিক চোরাচালান চক্রের একটি সক্রিয় দল।অভিযানে আটককৃতরা হলেন,মোঃ সফিউদ্দিন শানু (৫০) ফিরোজা বেগম (৫৭) তমজিদুল ইসলাম মনির (৩৪) আসমা বেগম (৪২) আলমগীর হোসেন(২৬), মো. মাসুদ রানা (২৪)।
বিষয়টি নিশ্চিত করে র‌্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি রাজধানী দক্ষিণখান থানাধীন ৫০নং ওয়ার্ড গুলবার মুন্সি স্মরণী রোড এলাকায় কয়েকজন আন্তর্জাতিক চোরাচালান চক্রের সদস্য বিপুল পরিমাণ সাপের বিষ নিয়ে চোরাচালানের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের আভিযানিক দল ৩.২০ মিনিটের দিকে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে পালানোর চেষ্টাকালে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারকৃত আসামিদের সাপের বিষ সংক্রান্ত বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে প্রথমে অস্বীকার করে। পরবর্তীতে তাদের সাথে থাকা ব্যাগের ভেতর তল্লাশি করে কাচের জারে রক্ষিত অবস্থায় ৮.৯৬ কেজি (জারসহ) সাপের বিষ পাওয়া যায়, যার আনুমানিক বাজার মূল্য ৭৫ কোটি টাকা।
এছাড়াও তাদের সাথে থাকা সাপের বিষ সংক্রান্ত সিডি এবং সাপের বিষের ম্যানুয়াল বই উদ্ধার করা হয়।
গ্রেফতারকৃত আসামিদেরকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়,বিশ্ব বাজারে সাপের বিষের ব‍্যাপক চাহিদা থাকায় অধিক মুনাফার লোভে পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্ত হতে সাপের বিষ সংগ্রহ করে চোরাচালান করে আসছে তারা। গ্রেফতারকৃত আসামিরা একটি সংঘবদ্ধ আন্তর্জাতিক সাপের বিষ চোরাচালান চক্রের সক্রিয় সদস্য।
এছাড়াও আটককৃত আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে, যা যাচাই-বাছাই করে ভবিষ্যতেও এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।
র‍্যাব জানায়, এদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here