হোসেনপুরের ৩নং গোবিন্দপুর ইউপির সাড়ে চার বছর উন্নয়ন শীর্ষক-সংবাদিক সম্মেলন।

0
30

তৌহিদুল ইসলাম সরকার:

নান্দাইল-(ময়মনসিংহ)-প্রতিনিধি:

কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে ৩ নং গোবিন্দপুর ইউনিয়ন পরিষদ ও আধুনিক আলোকিত ইউনিয়ন গড়ার প্রত্যয়ে ২০১৬ সালে বিপুল ভোটের ব্যবধানে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত মোঃ শফিকুল ইসলাম ভূঁইয়া (হিমেল) নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে হোসেনপুর উপজেলার ৩নং গোবিন্দপুর ইউনিয়ন পরিষদের দুঃখী মেহনতি মানুষের পাশে থেকে কাজ করেছেন।
সাড়ে চার বছরের উন্নয়ন কর্মকান্ড নিয়ে-সফলতা ও উন্নয়ন শীর্ষক” এক সংবাদ সম্মেলন করেন।

মঙ্গলবার (২২ডিসেম্বর) সকাল ১১ টায় গোবিন্দপুর ইউনিয়ন পরিষদের হল রুমে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্টিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন চেয়ারম্যানন মোঃ শফিকুল ইসলাম ভূঁইয়া (হিমেল) তিনি বলেন স্বাধীনতার পর থেকে ইউনিয়ন পরিষদের নিজস্ব কোন ভবন ছিল না নির্বাচিত হয়ে নতুন ভবন নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করে জমিদার শ্রী-বাবু মানবেন্দ্র নাথ চক্রবর্তী চৌধুরীর শরণাপন্ন হই তখন তিনি গোবিন্দপুর ইউনিয়ন বাসীর প্রতি শু-দৃষ্টি রেখে ৩০ শতক জমি বরাদ্দ দেন ইউনিয়ন পরিষদ ভবন নির্মাণ করার জন্য তখন বাবুর নিকট থেকে পাওয়া ৩০ শতক জমি গ্রহণ করে কাওলা বাবধ খরচ নিজে বহন করি। মানব বাবুর বাড়ির রাস্তা সিসিকরণ। গোরস্থানে জায়গা গ্রহণ, ৪০-৫০টি রাস্তা ও কালভার্ট নির্মাণ,ইউনিয়ন পরিষদে ভাতাভোগীদের বসার ব্যবস্থা আপ্যায়নের ব্যবস্থা করেন।গুরুত্বপূর্ণ বাজারে পাবলিক টয়লেট স্থাপন,নিরাপদ পানির ব্যবস্থা করে দিয়েছি।

একটি আধুনিক আলোকিত ইউনিয়ন গড়ার সকল রকম ব্যবস্থা গ্রহণের ব্যাপারে সাড়ে চার বছরে ব্যাপক পরিশ্রম করেছেন বলে জানান চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম ভূঁইয়া হিমেল।

তিনি আরো বলেন,করোনা পরিস্থিতিতে নিজের অর্থায়নে সাপ্তাহিক দুই দিন ইউপি ভবনের সামনে ফ্রি সবজির বাজার করে দিয়েছেন।

মাদক,সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ ও দূর্নীতি মুক্ত, দায়বদ্ধতা নিশ্চিত করে একটি উন্নত মডেল ইউনিয়নে পরিনত করার লক্ষে, হিমেল চেয়ারম্যান ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগনকে নিয়ে আলোচনার মাধ্যমে কাজ করে যাচ্ছেন। গরিব ও অসহায় মানুষের খবর পেল আর্থিকভাবে সহযোগিতার মাধ্যমে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

জনপ্রতিনিধির সাথে সাধারন মানুষের স্বার্থে উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত রয়েছেন

মোঃ শফিকুল ইসলাম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এলাকার সব সময় মানুষের বিপদে-আপদে নিবেদিত ছিলেন। এলাকার উন্নয়নে সবাইকে সাথে নিয়ে কাজ করেছেন। তিনি আশা করেন আসন্ন ইউনিয়ন নির্বাচনে দলমত নির্বিশেষে সকলের দোয়া এবং সহযোগিতা নিয়ে এগিয়ে যাবেন। মোঃ শফিকুল ইসলাম ভূঁইয়া হিমেল বলেন মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন যদি আমাকে আবারো ৩নং গোবিন্দপুর ইউনিয়ন বাসীর সেবা করার সুযোগ দেন তাহলে তিনি একটি আধুনিক মডেল ইউনিয়ন গড়তে সবাইকে নিয়ে কাজ করবেন। প্রথম কাজ হবে এলাকায় মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স গ্রহন করা, একটি কলেজ নির্মাণ করা এবং খেলাধূলার জন্য একটি মাঠ।

তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত “আমার গ্রাম আমার শহর” বাস্তবায়নের লক্ষে মাদকমুক্ত একটি আধুনিক পরিকল্পিত শিক্ষাবান্ধব, স্বাস্থ্য খাতে মনিটর, প্রতিটি ড্রেনেজ ব্যবস্থা ,প্রতিটি এলাকায় রাতের বেলা পাহারাদারের ব্যবস্থা, ইউনিয়নে প্রতিটি রাস্তার পাকাকরনের ব্যবস্থা ও রাস্তার পাশে বৃক্ষরোপনের মাধ্যমে সবুজ নগরী ডিজিটাল ইউনিয়ন জনগণকে উপহার দেবেন। ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রামে স্বল্পমূল্যে ওয়াই-ফাই ব্যবস্থার মাধ্যমে একটি আধুনিক মডেল ইউনিয়ন গড়ে তোলার অঙ্গীকারে আগামি ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আবারো স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়তে চান । বিগত সাড়ে চার বছরে মাঠে কাজ করতে গিয়ে ইউনিয়নের সাধারন মানুষের সাথে মেশার সুযোগ হয়েছে বলে তিনি জানান।

তাই যদি তিনি সুযোগ পান বিশেষ করে সমাজের অসচ্ছল অসহায় গরিব, বিধবা, বয়স্ক এবং প্রতিবন্ধী মানুষের জন্য কাজ করবেন। মিলেমেশে একটি ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্রমুক্ত, মাদকমুক্ত মডেল ইউনিয়ন গড়তে সকলে মিলিয়ে কাজ করে যাব।

একজন উচ্চ শিক্ষিত মেধাবী,ভদ্র ও নম্র মানুষ দীর্ঘ দিন থেকে ইউনিয়নের অসহায় মানুষের সহযোগীতা করে অসহায় ও গরীব মানুষের খুব আপনজন হয়ে উঠেছেন চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম হিমেল ।

এছাড়া বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও রাজনৈতিক সংগঠনে ও রয়েছে তার প্রচুর অবদান।
সংবাদ সম্মেলনে ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার ১৫ জন সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here