হাসপাতালে জোরপূবর্ক ধর্ষণচেষ্টা ও মারধর করা সংবাদকর্মী আসলাম সাকিবের বিরুদ্ধে মামলা।

দৈনিক বাংলার রূপ

0
8

বিষেশ প্রতিনিধিঃ

সাভারের আশুলিয়ায় একটি হাসপাতালে প্রবেশ করে মারধর ও ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে এক যুবকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী এক নারী। এঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত যুবক।

রবিবার( ৪ জুন) দিবাগত  রাতে আশুলিয়া থানায় মামলাটি দায়ের করেন ভুক্তভোগী নারী।

আসামি সাকিব আসলাম (৩২) আশুলিয়ার গকুলনগর এলাকার ভাড়া বাসায় বসবাস করে। সে বাংলাদেশ বুলেটিন ডটকম নামে একটি অনলাইন নিউজপোর্টালের স্থানীয় প্রতিনিধি।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী নারী আশুলিয়ার নবীনগর এলাকায় একমাত্র সন্তান নিয়ে বসবাস করে আসছেন। তার স্বামী প্রবাসে থাকায় তিনি নিজে নবীনগরে একটি মার্কেটে রেস্তোরা পরিচালনা করেন। ২ বছর আগে রেস্তোরায় যাওয়া আসার সুবাদে আসামি সাকিব আসলামের সাথে তার পরিচয় হয়। এক পর্যায়ে তাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয় আসামি সাকিব। স্বামী-সন্তান আছে জানালেও তাদের ছেরে ভুক্তভোগীকে বিয়ে করতে চাপ দেয় আসামি। এতে রাজি না হওয়ায় তাকে খারাপ প্রস্তাবসহ বিভিন্ন সমস্যা তৈরি করতে থাকে। এর মাঝে হঠাৎ অসুস্থ্য হয়ে পড়লে আশুলিয়ার বগাবাড়ি বাজার এলাকার একটি হাসপাতালে ভর্তি হয় ভুক্তভোগী। গত ২ জুন রাতে আসামি সাকিব ওই হাসপাতালে গিয়ে তার কেবিনে প্রবেশ করে দরজা আটকে দেয়। এসময় অসুস্থ্য ভুক্তভোগীকে জোরপূর্বক ধর্ষণচেষ্টা করে সাকিব। ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দিলে ভুক্তভোগীকে এলোপাতাড়ি কিলঘুষি মেরে জখম করে। এসময় তার চিৎকারে হাসপাতালের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিলন ফকির জানান, ভুক্তভোগীর শরীরে মারধরের জখম পাওয়া গেছে। এর আগেও আসামি সাকিবের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগী জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে দুটি সাধারণ ডায়েরি করেছিলেন। গতকাল রাতে আসামি সাকিবের বিরুদ্ধে ধর্ষণচেষ্টার মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী নারী। আসামি সাকিব পলাতক থাকায় তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।