সমালোচনার প্রেক্ষাপটে স্বাধীনতা পদকের তালিকা থেকে বাদ পরলেন সাহিত‍্যিক রইজ উদ্দিন।।

0
10

বাংলার রূপ,নিজস্ব প্রতিবেদক।।

এবারের স্বাধীনতা পদকের জন্য মনোনীতদের তালিকায় সাহিত‍্যিক এস এম রইজ উদ্দিনের নাম থাকলেও  বৃহস্পতিবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সংশোধিত তালিকা প্রকাশ করেছে সেখানে নেই  তার নাম  ।

কেন রইজ উদ্দিনের নাম সংশোধিত তালিকায় নেই- সেই প্রশ্নে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (কমিটি ও অর্থনৈতিক অধিশাখা) আবু সালেহ্‌ মোস্তফা কামাল দৈনিক বাংলার রূপ কে বলেন, “সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

গত ২০ ফেব্রুয়ারি নয় ব্যক্তি ও একটি প্রতিষ্ঠানকে এবারের স্বাধীনতা পদকের জন্য মনোনীত করা হয়, যেখানে সাহিত্যে রইজ উদ্দিনের নাম ছিল।

সদ্য সাবেক সরকারি কর্মকর্তা রইজ উদ্দিন ২৫টির বেশি বই লিখলেও সমকালীন বাংলা সাহিত্য অঙ্গনে তিনি পরিচিত ছিলেন না।

 

রইজ উদ্দিনের নাম তালিকায় দেখে অনেক কবি-সাহিত্যিক বিস্ময় প্রকাশ করেন।

বাংলা একাডেমির সাবেক মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান ফেইসবুকে লিখেছিলেন, “এবার সাহিত্যে স্বাধীনতা পুরস্কার পেলেন রইজ উদ্দীন, ইনি কে? চিনি না তো। নিতাই দাসই বা কে! হায়! স্বাধীনতা পুরস্কার!

অসাধারণ অবদানের জন্য যারা চিরস্মরণীয় হয়ে আছেন এবং শিক্ষা-সংস্কৃতি, শিল্প-সাহিত্য, বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ও জনকল্যাণসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে যারা দেশ ও সমাজকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন- তাদের যথাযথ সম্মান ও স্বীকৃতি প্রদানের দায়িত্ববোধ থেকে দেশের ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ‘স্বাধীনতা পুরস্কার’ দেওয়া হয়।বাংলাদেশের বেসামরিক সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পুরস্কারপ্রাপ্তরা ১৮ ক্যারেট মানের পঞ্চাশ গ্রাম ওজনের একটি স্বর্ণপদক, পাঁচ লাখ টাকার চেক ও একটি সম্মাননাপত্র পান।

এবার পুরস্কারের জন্য মনোনীতরা হলেন কমান্ডার (অব.) আবদুর রউফ ও লেখক-অধ্যাপক আনোয়ার পাশা, বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী, আজিজুর রহমান, অধ্যাপক ডা. মো. উবায়দুল কবীর চৌধুরী, ডা. এ কে এম এ মুকতাদির, কালীপদ দাস ও অভিনেত্রী ফেরদৌসী মজুমদার। এছাড়া ভারতেশ্বরী হোমসকেও এবার পদক দেওয়া হবে।

আগামী ২৫ মার্চ ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মনোনীতদের পদক বিতরণ করবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here