রৌমারী সরকারি কলেজের এক ছাত্রকে হত্যার হুমকি।

0
140
কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ
কুড়িগ্রামের রৌমারীতে জমিজমা সংক্রান্ত ব্যাপারে দীর্ঘদিনের শত্রুতার জের ধরে প্রায় ২মাস পূর্বে একটি হতাহতের ঘটনা ঘটে। হতাহতের ঘটনার প্রেক্ষিতে থানা পুলিশ অভিযোগের ভিত্তিতে বিবাদীকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত আসামি জেল থেকে বেড়িয়ে
গত মঙ্গলবার রৌমারী সরকারি ডিগ্রি কলেজের ছাত্র শামিম হাসান সোহাগ (১৭) ও তার পিতা আঃ আলীম (৫৮)কে চাক্তাবাড়ি মোড়ে প্রকাশ্য দিবালোকে এ হত্যার হুমকি দিয়েছে বলে জানাগেছে। নিরাপত্তাহীন পরিবার নিজেদের সুরক্ষা চেয়ে রৌমারী থানায় একটি সাধারণ ডাইরি করেছে।
উল্লেখ্য যে, প্রায় তিন-চার মাস পূর্বে জমিজমা সংক্রান্ত ব্যাপারে ঠনঠনি পাড়ার অভিযুক্ত চান মিয়া ও বাবলু মিয়া একই গ্রামের আঃ আলীম ও তার দুই ছেলে সবুজ, সোহাগ’র উপড় অতর্কিত হামলা করে। এসময় আঃ আলিম ও তার দুই ছেলেকে দেশিও অস্ত্র দ্বারা এলোপাথাড়িভাবে কোপাতে থাকলে আ. আলিম গুরুত্বর অসুস্থ হয়ে রংপুর মেডিক্যাল হাসপাতালে ২মাস যাবৎ চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়। অপরদিকে তার দুই ছেলের হাত ও পায়ের দীর্ঘদিনের ইঞ্জুরি পোহাতে হয়। অভিযুক্ত চাঁন ও বাবলু হাইকোর্ট থেকে জামিনে বের হয়ে গতকাল মঙ্গলবার চাক্তাবাড়ি বাজারে প্রকাশ্যে আব্দুল আলীম ও তার কলেজ পড়ুয়া ছেলে সোহাগ কে হত্যার হুমকি দেয়।
আব্দুল আলীম ও তার কলেজ পড়ুয়া ছেলে সোহাগ সাংবাদিকদের জানায়, ওই এলাকায় চাঁন মিয়া ও বাবলু সর্বদাই নীরহ মানুষ গুলোকে ঠকিয়ে আসছে। ওদের ভয়ে ঠনঠনি পাড়ার মানুষ আতংকিত। সেখানে আমাদের মজলুম হয়ে বাঁচতে হয়। আমাদের জমি দখলদারিত্ব না করতে পারায় আমাদের উপড় এমন জুলুম তাদের।
এব্যাপারেরৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ আল মুন্তাছির বিল্লাহ জানান, একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here