রংপুরের গংগাচড়ায় চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে এক গৃহবধূকে ধর্ষণ।

0
29

মোঃমাহমুদ জুয়েল 

গঙ্গাচড়া (রংপুর )প্রতিনিধি:

রংপুরের গঙ্গাচড়ায় উপজেলার সদর ইউনিয়নের মধ্য নবনীদাস গ্রামে চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে এক গৃহবধূকে দুই যুবক মিলে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা যায়,একই গ্রামের খোরশেদ আলম খরকুর ছেলে বদরুল মিয়া প্রায় দুই সপ্তাহ আগে তার প্রতিবেশী এক গৃহবধূর নিকট টাকা ধার নেয়। টাকা ধার নেয়ার সম্পর্কের সূত্র ধরে বদরুল প্রায়ই ওই গৃহবধূর বাড়িতে যাতায়াত করে। এক পর্যায়ে সে ওই গৃহবধূকে কু-প্রস্তাব দেয়। এতে সাড়া না পাওয়ায় বদরুল ওই গ্রামের মুদি ব্যবসায়ী নয়া মিয়ার ছেলে কুদ্দুস মিয়া (৩৫) এর সাথে ওই গৃহবধূকে অচেতন করে দুজনে ধর্ষণ করার পরিকল্পনা করে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়,গত ২৩ এপ্রিল শুক্রবার ইফতারের আগে ওই গৃহবধূ কুদ্দুস মিয়ার দোকানে কিছু খাবার ক্রয় করতে গেলে তাকে চেতনানাশক ওষুধ মেশানো খাবার দেয়া হয়। ওই খাবার খেয়ে গত শুক্রবার দিবাগত রাতে গৃহবধূ ও তার তিন সন্তান অচেতন হলে বদরুল ও কুদ্দুস দুজনে কৌশলে তার ঘরে ঢুকে ধর্ষণ করে।

পরে এলাকাবাসী শনিবার সকালে তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য গঙ্গাচড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।জানাযায় ঘটনার অনেক আগে থেকেই ওই গৃহবধূর স্বামী কাজের জন্য ফেনী জেলায় অবস্থান করছিল। বদরুলের বিরুদ্ধে এলাকায় একাধিক ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে বলে এলাকাবাসী জানান।

এ ব‍্যাপারে গঙ্গাচড়া মডেল থানার ওসি সুশান্ত কুমার সরকার জানান, ধর্ষণের মামলা হয়েছে, অভিযুক্ত একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পলাতক আসামী গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here