নাটোরের গুরুদাসপুরে অজ্ঞাত মরদেহ উদ্ধারের রহস্য উন্মোচিত, গ্রেফতার-১।।

0
9

মুসা আকন্দ

নাটোর জেলা প্রতিনিধি:

নাটোরের গুরুদাসপুরে পাট ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত নারীর মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় রহস্য উন্মোচন এর দাবি করেছে পুলিশ। রবিবার দুপুর একটার দিকে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা। তিনি আরো জানান একজন গুরুদাসপুর উপজেলার বিলাসপুর গ্রামের পাট ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয় পরে পুলিশ ওই নারীর ফিঙ্গারপ্রিন্ট নিয়ে তার পরিচয় উদ্ধার করে। নিহতের নাম রাখি খাতুন। তিনি রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ী থানার তালধারি গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের মেয়ে। পুলিশ ওই নারীর বাড়িতে গিয়ে তদন্ত করে এর রহস্য উদঘাটন করে। ব্রিফিং সূত্রে জানা যায় রাখির স্বামী রাজশাহী জেলার তানোর থানার চান্দুড়িয়া গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে মিলন ইকবালকে তার তৃতীয় স্ত্রী তহমিনার প্ররোচনায় ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার নাম করে যাত্রীবাহী বাসে করে গুরুদাসপুরে এসে নেমে পড়ে। তারপর সেখানে এক আত্মীয়ের বাড়িতে যাওয়ার নাম করে পরিকল্পনা মোতাবেক রাস্তার পাশে পাট খেতে নিয়ে গিয়ে হাতুড়ি দিয়ে তার স্ত্রী রাখি খাতুনের মাথার পেছনে সজোরে আঘাত করে। আঘাতের ফলে তার স্ত্রী রাখি ঘটনাস্থলে মারা গেলে তাকে পাট ক্ষেতের ভিতর লুকিয়ে রাখে। পরে হত্যার কাজে ব্যবহৃত হাতুড়ি পাট ক্ষেতের মধ্যে ফেলে দিয়ে পুনরায় কাছিকাটা বিশ্বরোড মোড়ে এসে পিক আপ গাড়িতে করে রাত্রিতে রাজশাহীতে ফিরে আসে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here