অতি শিগ্রই শতভাগ মানুষের মাঝে পানি সরবরাহ করা হবে:এলজিআরডি মন্ত্রী।

0
26
খোরশেদ আলম
রূপগঞ্জ প্রতিনিধি ঃ
স্থানীর সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী বলেছেন, অল্প সময়ের ভেতরে শতভাগ মানুষের মাঝে পানি সরবরাহ করা হবে। কিন্তু এখানে একটি চ্যালেঞ্জ রয়েছে। পানির স্তর অনেক নিচে নেমে যাচ্ছে। এ কারণে আমাদের সারফেস ওয়াটারের কথা চিন্তা না করে উপায় নেই। সুপেয় পানি দিতে হলে আমাদের বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নিতে হবে। তিনি বলেন, ঢাকাসহ সারাদেশের জন্য সেইফ ওয়াটার দেওয়া হবে। বর্তমানে বাংলাদেশে ৯৮ ভাগ মানুষের মাঝে পানি সরবরাহ করা হয়েছে।
  ০৬ (ফেব্রুয়ারি)শনিবার দুপুরে ঢাকা এনভায়রমেন্টালি সাসটেইনেবল ওয়াটার সাপ্লাই প্রকল্পের (ঢাকা ওয়াসা) রূপগঞ্জের গন্ধর্বপুর পানি শোধনাগার কেন্দ্র পরিদর্শনে এসে মন্ত্রী এসব কথা বলেছেন। এলজিআরডি মন্ত্রী বলেন, এক সময় চট্টগ্রামের মানুষ পানি পায়নি ও ওখানে পানি সরবরাহ বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। ২০০৮ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার গঠনের পর চট্টগ্রামসহ শহরের সব জায়গায় পানি আছে। এমনকি ঢাকাতে কোনো জায়গায় পানির স্বল্পতা নেই। এ জন্য রূপগঞ্জ উপজেলার গর্ন্ধবপুরের একটি প্রকল্পের কাজ শেষ হতে যাচ্ছে। আরও চারটি প্রকল্প করা হবে এবং এটি আমাদের খুব দ্রুত করতে হবে। আমরা আমাদের যে প্রকল্পগুলো আছে নির্দিষ্ট সময়ের আগে শেষ করার চেষ্টা করি। আমরা দ্রুত প্রকল্পের কাজগুলো শেষ করবো। ওয়াসার দায়িত্ব হলো স্যানিটেশন। সুয়ারেজ সিস্টেমের মাধ্যমে সুয়ারেজগুলোকে সংগ্রহ করে ব্যবস্থা নেব।
এ সময় তিনি আরও বলেন, ঘিঞ্জি ও দরিদ্র এলাকাগুলোকে উন্নত করতে হবে। এক সময় বাজেট ছিল ১ লাখ কোটির নিচে ছিল ও এখন বাজেট ৫ লাখ ৬৪ হাজার টাকা। যেসব বিষয়গুলো আমলে নেয়া দরকার কম টাকায় রাস্তা করলে সেই রাস্তা গুলো নষ্ট হয়ে যায়। যেকোনো প্রকল্পের ব্যয় বাড়ানোর জন্য যৌক্তিকতা থাকতে হবে। আমি মনে করছি আমরা দুই বছর পর রাস্তা না করে ৫ বছরের জন্য আমরা যদি টেকসই রাস্তা করা প্রয়োজন। এ জন্য আমরা একটি কমিটি করে দিয়েছি। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাকসিম এ খান, প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী মাহমুদুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক মোস্তাই বিল্লাহ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ্ নূসরাজ জাহান, গ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মাহিন ফরাজী, রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিনুল কাদির প্রমুখ।  জানা গেছে, ঢাকা শহরের উত্তর-পশ্চিমাংশের পানি সরবরাহ পরিস্থিতি উন্নয়সহ পরিবেশবান্ধব ও টেকসই ভূ-উপরিস্থ পানি সরবরাহ ব্যবস্থার উন্নয়নের লক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার উপজেলার অন্তর্গত মেঘনা নদীর পশ্চিম পাগে বিশনন্দী এলাকায় দৈনিক ১০৫ কোটি লিটার পানি উত্তোলন ক্ষমতা সম্পন্ন ইনটেক স্থাপন, রূপগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদীর পূর্ব পাড়ে গন্ধর্বপুরে ঢাকা ওয়াসার নিজস্ব জায়গায় ১ম ফেইজে দৈনিক ৫০ কোটি লিটার ক্ষমতা সম্পন্ন পানি শোধনাগার নির্মাণ ও পরিশোধিত পানি ট্রান্সমিশন ও ডিস্ট্রিবিউশন লাইনের মাধ্যমে ঢাকা মহানগরীর উত্তর-পশ্চিমাংশে বাড্ডা, গুলশান, বনানী, উত্তরা, মিরপুর, দক্ষিণখান, উত্তরখান, মাটিকাটাসহ অন্যান্য এলাকায় পানি সরবরাহ করা এ প্রকল্পের লক্ষ্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here